মেনু নির্বাচন করুন

►গ্রাম পুলিশের দায়িত্ব

গ্রাম পুলিশের সদস্যদেরকে যে কোন নাম বাউ পাধিতেই ডাকা হোক না কেন তারা স্থানীয় সরকার (ইউনিয়ন পরিষদ) অধ্যাদেশ, ১৯৮৩ এর তফসীল -১ এর ২য় অংশে বর্ণিত ক্ষমতা প্রয়োগ এবং কর্তব্য পালন করেন।

 

গ্রামপুলিশেরক্ষমতাকার্যাবলী

  • একজন গ্রামপুলিশ দিনে ও রাতে ইউনিয়নে পাহাড়া ও টহলদারী করেন।
  • অপরাধের সংগে সংশ্লিষ্ট সকল বিষয় অনুসন্ধান ও দমন করেন এবং অপরাধীদের গ্রেফতার করতে সাধ্যমত পুলিশকে সহায়তা করেন।
  • চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদকে সরকারী দায়িত্ব পালনে সহায়তা করেন।
  •  অন্য নির্দেশনা থাকলে প্রতিপনের দিন অন্তর এলাকার অবস্থা সম্পর্কে সংশ্লিষ্ট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করেন।
  • ইউনিয়নের খারাপ চরিত্রের লোকেদের গতি বিধি লক্ষ্য করেন এবং মাঝে মাঝে থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করেন। পাশের এলাকা থেকে আগত কোন সন্দেহ জন কব্যক্তির উপস্থিতি সম্পর্কেও থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত করেন।
  • ইউনিয়নে লুকিয়ে থাকা কোন ব্যক্তি, যার জীবন ধারণের জন্য প্রকাশ্য কোন আয়নেই বা যে তার নিজের পরিচয় সম্পর্কে সন্তোষ জনক কোন জবাব দিতে পারে না, এমন লোক সম্পর্কে থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার নিকট রিপোর্ট প্রদান করেন।
  • থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে সে সকল বিষয় সম্পর্কে অবহিত করেন, যা বিরোধ, দাংগা-হাংগামা বা তুমুলক হসৃষ্টি করতে পারে এবং জনগণের শান্তি বিঘ্নিত করতে পারে।
  • ইউনিয়নে নিম্ন লিখিত অপরাধ ঘটলে বা ঘটার সম্ভবনা সম্পর্কে কোন তথ্য জানতে পারলে তা দ্রুত থানার ভার প্রাপ্ত কর্মকর্তাকে অবহিত  করেন।যেমন-
  • দাংগা -হাংগামা,
  • গোপনে মৃত দেহ সরিয়েজন্ম সংক্রান্ত তথ্য গোপন করা,
  • কোন শিশুকে বাড়ি হতে বের করে মৃত্যুর মুখে ঠেলে দেওয়া,
  • আগুনের সাহায্যে সংঘটিত ক্ষতি,
  • বিষ প্রয়োগে গবাদি পশুর অনিষ্ট বা ক্ষতি করা,
  • নর হত্যা বা আত্মহত্যার প্রচেষ্টা এবং উপরে উল্লেখিত অপরাধ সংঘটন বা অপরাধ সংঘটন করার চেষ্টা।
    1. আমল যোগ্য অপরাধের সাথে জড়িত কোন ব্যক্তি বা যার বিরুদ্ধে যথার্থ অভিযোগ উত্থাপন করা হয়েছে বা বিশ্বাস যোগ্য তথ্য পাওয়া গেছে বা কোন অপরাধ মূলক কাজের সহিত জড়িত থাকার যুক্তি সংগত কারন রয়েছে।
    2. বৈধ কারন ছাড়াই কোন ব্যক্তির কাছে ঘর ভাঙ্গার সরঞ্জাম পাওয়া গেলে।
    3. সরকারের কোন আদেশ বলে বা ১৮৯৮ সালের ফৌজদারী কার্যবিধির(১৮৯৮সালের ৫নং আইন) অধীন কোন ব্যক্তিকে যদি অপরাধী ঘোষণা করা হয়।
    4. যে কোন ব্যক্তিযার অধিকারে এমন সকল দ্রব্য বা মাল রয়েছে যা চোরাই মাল বলে সন্দেহ করার যথার্থ কারন রয়েছে বা এ মাল দেখে সে কোন অপরাধ সংঘটনের সাথে জড়িত আছে বলে যথার্থভাবে সন্দেহ হলে।
    5. বৈধ হেফাজত বা তত্ত্বাবধান হতে কোন ব্যক্তি পালিয়ে গেলে বা পালাবার চেষ্টা করলে।
    6. কোন ব্যক্তি কোন সরকারী কর্মচারীকে তার সরকারী দায়িত্ব পালনে বাঁধা দিলে।
    7. এমন কোন ব্যক্তি যাকে বাংলাদেশসেনাবাহিনী, নৌ-বাহিনী বা বিমান বাহিনীর পলাতক সৈনিক বলে যথার্থভাবে সন্দেহ হলে।
    8. মুক্তি প্রাপ্ত কোন অপরাধী ১৮৯৮ সালের ফৌজদারী কার্যবিধির(১৮৯৮সালের ৫নং আইন ৫৬৫ ধারায়) (৩) উপধারার কোন বিধান ভংগ করলে।
  • উপরে উল্লেখিত অনুচ্ছেদে বর্ণিত অপরাধ অথবা আদালতে গ্রহণ যোগ্য যে কোন অপরাধ বন্ধ করতে বা বন্ধ করার ক্ষেত্রে মধ্যস্থতা করার ক্ষেত্রে যথা সাধ্য চেষ্টা করেন।
  • জন্ম ও মৃত্যু রেজিস্ট্রার সংরক্ষণ এবং জন্ম ও মুত্যু সম্পর্কে ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করেন।
  • মানুষ বা পশু বা ফসলের মধ্যে কোন মহামারী বা সংক্রামক রোগ বা পোকার আক্রমণ ব্যাপক আকারে দেখা দিলে সাথে সাথে ইউনিয়ন পরিষদকে এ সম্পর্কে অবহিত করেন।
  • কোন বাঁধে বা সেচে ক্ষতি বা ত্রুটি দেখা দিলে অনতিবিলম্বে ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করেন।
  • সরকারী কাজের উদ্দেশ্যে যে কোন স্থানীয় তথ্য সরবরাহ করেন।
  • খাজনা বা ভূমি উন্নয়ন কর ,স্থানীয় কর ,ফি বা অন্য পাওনা সংগ্রহ ও আদায়ে তিনি রাজস্ব কর্মচারীদের সহায়তা করেন।
  • অধ্যাদেশের অধীনে কোন অপরাধ সংঘটন বা সংঘটনের অভি প্রায় সম্পর্কে জ্ঞাত হলে বা জানতে পারলে তা ইউনিয়ন পরিষদকে অবহিত করেন।
  • ইউনিয়নপরিষদেরবাইউনিয়নপরিষদেরঅধিকারেন্যস্তকোনস্থাবরবাঅস্থাবরসম্পত্তিরক্ষতিসাধনবাপ্রতিবন্ধকতাসৃষ্টিবাঅন্যায়দখলসম্পর্কেতিনিঅবিলম্বেইউনিয়নপরিষদকেঅবহিতএবংএধরণেরক্ষতি,প্রতিবন্ধকতাবাঅন্যায়দখলরোধকরারজন্যমধ্যস্থতাকরেন।
  • ইউনিয়নপরিষদেরনির্দেশেকোনবাসিন্দারআবাসস্থলবাসম্পত্তিরউপরপরোয়ানাজারিকরেন।
  • গ্রামপুলিশম্যাজিস্ট্রেটেরআদেশওওয়ারেন্টবাগ্রেফতারীপরোয়ানাছাড়াইনিম্নলিখিতক্ষেত্রেগ্রেফতারকরতেপারেন:
  • সাধারণলোককোনব্যক্তিকেবৈধভাবেগ্রেফতারকরলেতিনিতাদেরসাহায্যকরেনএবংদেরীনাকরেএধরণেরগ্রেফতারসম্পর্কেথানারভারপ্রাপ্তকর্মকর্তাকেঅবহিতকরেন।
  • গ্রামেকর্মরতসরকারীকর্মচারীবাকোনসাধারণলোকসাময়িকভাবেবলবৎকোনআইনবলেকোনব্যক্তিকেগ্রেফতারকরলেতিনিতারদায়িত্বগ্রহণকরেনএবংতিনিযেব্যক্তিরবাব্যক্তিবর্গেরদায়িত্বগ্রহণকরেছেনবাতিনিনিজেইযেব্যক্তিবাব্যক্তিদেরগ্রেফতারকরেছেনতাদেরকেঅনতিবিলম্বেথানারভারপ্রাপ্তকর্মকর্তারনিকটহাজিরকরবেন।তবেশর্তথাকেযে, রাতেরঅন্ধকারেকোনব্যক্তিবাব্যক্তিদেরগ্রেফতারকরাহলেতাকেবাতাদেরকেগ্রামেবৈধতত্ত্বাবধানেরাখাযেতেপারে।কিন্তুপরদিনসকালেসম্ভাব্যতাড়াতাড়িসময়েতাদেরকেথানায়হাজিরকরতেহয়।
  • বিভিন্নসময়েআইনঅনুযায়ীতারউপরঅর্পিতদায়িত্বপালনকরেন।উপরোক্তকার্যাবিলীছাড়াওগ্রামপুলিশএলাকারবিভিন্নধর্মীয়, সামাজিকওসাংস্কৃতিকপ্রতিষ্ঠানেরসদস্যহিসেবেগুরুত্বপূর্ণভূমিকাপালনকরেন।
  • অস্বাভাবিকমৃত্যুবাখুনেরক্ষেত্রেলাশপাহাড়াদেনএবংথানায়পৌঁছনোপর্যন্তলাশেরসঙ্গেথাকেন।
  • এলাকায়থানারপুলিশএলেসবসময়তাদেরসাথেথাকেন।
  • উঁচুপর্যায়েরসরকারীকর্মকর্তাগণপরিদর্শনেএলেতাদেরকেসার্বিকসহায়তাকরেন।
  • আদালতেরমামলামোকদ্দমারতারিখজারিএবংইউনিয়নপরিষদেরচেয়ারম্যানওসদস্যদেরআদেশঅনুসারেকাজকরেন।
  • গ্রামআদালতেবিচারচলাকালেউপস্থিতথাকেন।
  • গ্রামপুলিশগণথানাএবংইউনিয়নপরিষদেরযৌথনিয়ন্ত্রণেকাজকরেন; প্রতিসপ্তাহেতারাথানাএবংসময়সময়ইউনিয়নপরিষদেহাজিরাদেন।

 

সচরাচরজিজ্ঞাসা

প্রশ্ন: ইউনিয়নেদিনেরাতেপাহাড়াটহলেরদায়িত্বেকেথাকেন

উত্তর: : ইউনিয়নেদিনেওরাতেপাহাড়াওটহলদারীকরেনগ্রামপুলিশ।

প্রশ্ন: খারাপচরিত্রেরলোকেদেরবিষয়েগ্রামপুলিশেরদায়িত্বকি

উত্তর: গ্রামপুলিশইউনিয়নেরখারাপচরিত্রেরলোকেদেরগতিবিধিলক্ষ্যকরেনএবংমাঝেমাঝেথানারভারপ্রাপ্তকর্মকর্তাকেঅবহিতকরেন।

 

গ্রাম পুলিশের দায়িত্ব

01) গ্রামের খারাপ লোকের চরিত্র সংশোধন করা এবং তাদের উপর নজর রাখা।

02) চুরি, ডাকাতি, খুন, বে-আইনীঅস্ত্রব্যবহার, চোরাচালানী, খারাপকাজ, এসবদমনকরা।

03) সরকারী মালামাল দেখা শুনা করা।

04) প্রয়োজনে গ্রাম পাহারা দেয়া।

05) আইন-শৃখলারক্ষা এবং চোরাচালান দমনে সাহায্য করা।

06) গ্রামে ঝগড়া বিবাদ মিমাংসা করা এবং  শান্তি রক্ষা করা।

07) পরিবারের সবায় মিলে বেশী বেশী কাজ করা।

08) সারা বছর জমিতে ফসল, ফলমুল ও শাক-সব্জির আবাদ করা।

09) গরু, ছাগল, হাঁস, মুরগী পালন করা।

10) কুটির শিল্পের কাজ করা।

11) বেশী আয় করা এবং কমখরচকরে অর্থসঞ্চয় করা।

12) বই পড়ে জ্ঞান লাভ করা।

13) পরিবার ছোট রাখা ও ২ টির বেশী সন্তান না নেয়া।

14) গ্রাম কে নিরক্ষর মুক্ত করা।

15) নৈতিকতা জ্ঞানে সমৃদ্ধ দেশ প্রেমিক নাগরিক গঠন করা।

16) স্বাস্থ্য সম্মত লেট্ট্রিন তৈরী ও টীকাদানক র্মসূচীতে অংশ গ্রহণ  করা।

17) ক্লাব সমিতি গঠন করা।

18) নিয়মিত ব্যাংক ঋনের কিস্তিপরি শোধ করা।

19) পরিবারের প্রত্যেক ১০ টি করে গাছ লাগানো।

20) জাতীয়/প্রাকৃতিক দূযোর্গ মোকাবেলা কার্যক্রমও পূনর্বাসন কাজে অংশ নেয়া।

21) দেশের সার্ব ভৌমম্ব রক্ষায় প্রশিক্ষণনিয়ে প্রস্ত্তত থাকবো।

22) দেশের আইন- শৃখলা উন্নয়নে ও চোরাচালান দমনে সর্বদা নিজেদের নিয়োজিত রাখবো।

23)১ বা ২সন্তানের আদর্শ পরিবার গড়বো।

24) গ্রাম/মহল্লা নিরক্ ষমুক্ত করবো।

25) প্রতি টি পরিবারকে স্বাস্থ্য সম্মত লেট্টিন তৈরীতে উদ্বুদ্ধ করব।

26)পরিস্কার পরিচ্ছন্ন গ্রাম/মহল্লা গড়ে তুলবো।

27) উন্নয়ন বার্তা গ্রামেগঞ্জে ছড়িয়ে দেবো।

28) ১০ টি করে গাছ লাগাবো।

29) মাদক মুক্ত সমাজ গড়ে তুলবো।

30) প্লাটুনকে সক্রিয় রেখে ঐক্যবদ্ধ ভাবে কাজ করবো।

31) সঞ্চয়ের অভ্যাস গড়ে তুলবো এবং স্বনির্ভর হবো।